ইরাকের শক্তিশালী ইসলামী সামারা প্রত্নতাত্ত্বিক শহর

সামারা প্রত্নতাত্ত্বিক শহর একটি শক্তিশালী ইসলামী রাজধানী শহর, যা এক শতাব্দী ধরে তিউনিশিয়া থেকে মধ্য এশিয়া পর্যন্ত আব্বাসীয় সাম্রাজ্য দ্বারা শাসিত হয়েছিল। এই শহরটি বাগদাদ শহরের ১৩০ কিলোমিটার উত্তরে টাইগ্রিস নদীর উভয় পাশে অবস্থিত, উত্তর থেকে দক্ষিণের দৈর্ঘ্য ৪১.৫ আরো পড়ুন...

আফগানিস্তানে নান্দনিক জামের মিনার ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন

৬৫ মি. লম্বা এই মিনার বারশ শতকের ১টি অপূর্বসুন্দর ও সুউচ্চ স্থাপত্যকলা। ইটের বিস্তৃত কারুকাজের সাথে নীল টাইলসের দেয়ালিকা ও নকশা সামগ্রিকভাবে একে স্থাপত্যকলা ও শিল্পের অন্যতম দৃষ্টিনন্দন নিদর্শন হিসেবে পরিনত করেছে। যা এই অঞ্চলের নির্মানশৈলী এবং প্রচলিত ধারার আরো পড়ুন...

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার তথ্যাবলী ও নামকরণ ইতিহাস

ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্বঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার আয়তন ১৯২৭.১১ বর্গ কিলোমিার। উত্তরে হবিগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলা, দক্ষিণে কুমিল্লা জেলা, পূর্বে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য এবং পশ্চিমে নরসিংদী ও কিশোরগঞ্জ জেলা অবস্থিত। আরো পড়ুন...

চট্টগ্রাম জেলার তথ্যাবলী ও নামকরণ ইতিহাস

বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল চট্টগ্রাম জেলা। পাহাড়, সমুদ্র, উপত্যকা, বন বনানীর কারণে চট্টগ্রামের মতো ভৌগোলিক অবস্থান বৈচিত্র্য বাংলাদেশের আর কোন জেলায় নেই। ১৬৬৬ সালে চট্টগ্রাম জেলা গঠিত হয়। তিন পার্বত্য জেলা এ জেলার অন্তর্ভূক্ত ছিল। ১৮৬০ আরো পড়ুন...

সুন্দরবনের হাট বাগেরহাট

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম কোণের একটি উপকূলীয় জেলা বাগেরহাট। প্রাচীন সমতটের এই জনপদের সমৃদ্ধির ইতিহাস উপমহাদেশের বহু প্রাচীন জনপদের সমকালীন ও সমপর্যায়ের। ইউনেসকো ঘোষিত বাংলাদেশে যে তিনটি বিশ্ব ঐতিহ্য স্থান রয়েছে, তার দুটির গর্বিত অবস্থান এই বাগেরহাটে। এর একটি হচ্ছে – ঐতিহাসিক আরো পড়ুন...

১৯১১ সালের এই দিনে মাচু পিচু (বর্তমান বিশ্বের সপ্তাশ্চর্যের একটি) আবিষ্কৃত হয়

১৯১১ সাল, জুলাইয়ের ২৪ তারিখ, আমেরিকান পুরাতত্ত্ববিদ হিরাম বিঙ্গাম পেরুর প্রাচীন অধিবাসী ইনকা-দের শহর মাচু পিচু-কে প্রথমবারের মত আবিষ্কার করেন। বর্তমানে এটি বিশ্বের শীর্ষ পর্যটন কেন্দ্রগুলোর মধ্যে একটি। আরো পড়ুন...

বঙ্গাব্দ, বাংলা সন বা বাংলা বর্ষপঞ্জিকার ইতিহাস

বঙ্গাব্দের সূচনা সম্পর্কে ২টি মত চালু আছে। প্রথম মত অনুযায়ী - প্রাচীন বঙ্গদেশের (গৌড়) রাজা শশাঙ্ক (রাজত্বকাল আনুমানিক ৫৯০-৬২৫ খ্রিস্টাব্দ) বঙ্গাব্দ চালু করেছিলেন। সপ্তম শতাব্দীর প্রারম্ভে শশাঙ্ক বঙ্গদেশের রাজচক্রবর্তী রাজা ছিলেন। আধুনিক বঙ্গ, বিহার এলাকা তাঁর সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত ছিল৷ অনুমান আরো পড়ুন...

সাতক্ষীরা জেলার ইতিহাস

বাংলাদেশের মানচিত্রে দক্ষিণ-পশ্চিম কোণে সাতক্ষীরা জেলার অবস্থান। ভৌগোলিক অবস্থানগত দিক দিয়ে তাকালে এ জেলার পূর্বে খুলনা জেলা, পশ্চিমে চব্বিশ পরগণা জেলার (ভারত) বসিরহাট মহকুমা, উত্তরে যশোর জেলা ও দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর। এ জনবসতি প্রাচীনকালে খ্যাত ছিল বুড়ন দ্বীপ নামে। এর আরো পড়ুন...

শিল্প নগরী খুলনা

খুলনা ঢাকা এবং চট্টগ্রামের পরে বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম শহর। খুলনা জেলা এবং খুলনা বিভাগের সদর দপ্তর এই খুলনা শহরে অবস্থিত। খুলনা বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে রূপসা এবং ভৈরব নদীর তীরে অবস্থিত। বাংলাদেশের প্রাচীনতম নদী বন্দরগুলোর মধ্যে খুলনা অন্যতম। খুলনা বাংলাদেশের অন্যতম আরো পড়ুন...